আজ || শনিবার, ১৫ Jun ২০২৪
শিরোনাম :
  খুলনা সার্কিট হাউজ মাঠে ইদজামাত আয়োজনের প্রস্তুতি পরিদর্শনে সিটি মেয়র       খুলনায় ঈদের প্রধান জামাত সার্কিট হাউজ মাঠে সকাল ৮টায়       পুত্রবধূর সঙ্গে ঝগড়া করে পুকুরে পড়ে শাশুড়ির মৃত্যু       নিউজিল্যান্ডকে বিপদে ফেলে সুপার এইটে ওয়েস্ট ইন্ডিজ       নগরীতে ইজিবাইক চালক রায়হান হত্যাকান্ডের মূল রহস্য উন্মোচন : দুই ঘাতক গ্রেফতার       নাড়ির টানে ঘরে ফিরছে মানুষ       যশোরে আইনজীবীর বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগ নেত্রীর শ্লীলতাহানির মামলা       স্বাভাবিক জীবনে আসা বনদস্যুদের মাঝে র‌্যাবের ঈদ সামগ্রী বিতরণ       ঘুমন্ত মায়ের কোল থেকে শিশু চুরির অভিযোগ       এই সংগ্রাম দেশের স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র রক্ষার : মির্জা ফখরুল    
 


সাকিবের বিশ্বকাপে খেলা ব্যাট বিক্রি হলো ২০ লাখ টাকায়

করোনায় অসহায়দের মাঝে অর্থ দানের জন্য নিজের প্রিয় ব্যাটটি নিলামে তুলেছিলেন সাকিব আল হাসান। তার এই ব্যাটটির সর্বোচ্চ দাম উঠল ২০ লাখ টাকা। যিনি ব্যাটটি কিনতে চেয়েছেন তিনি যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বাংলাদেশি। তার নাম রাজ। তবে পেমেন্ট পাওয়ার পর, আনুষ্ঠানিকভাবে বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হবে জানিয়েছেন নিলাম পরিচালনাকারী কর্তৃপক্ষ।

বুধবার ( ২২ এপ্রিল) বিকালেই ফেসবুকে অকশন ফর অ্যাকশন নামক পেইজে ব্যাটটি নিলামে তোলা হয়। ব্যাটটির ভিত্তিমূল্য ধরা হয় ৫ লাখ টাকা। বাংলাদেশ সময় রাত দশটায় ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে অনলাইনে নিলাম পরিচালনা করে অকশন ফর অ্যাকশন কর্তৃপক্ষ। সাকিব আল হাসান নিজে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে যুক্ত ছিলেন। রাত সোয়া ১১টায় নিলাম শেষ হয়।

ব্যাট নিয়ে সাকিব আল হাসান বলেছেন, ‘মানুষের জীবনের মূল্যের চেয়ে নিশ্চয়ই ব্যাটের মূল্য বেশি না। মানুষের কল্যাণের জন্য কাজ করতে পারব বলে ভালো লাগছে। সম্পূর্ণ টাকাই করোনা মোকাবেলার জন্য ব্যয় করা হবে।’

করোনা ভাইরাস মোকাবেলার জন্য ২০১৯ বিশ্বকাপে খেলা নিজের প্রিয় ব্যাট নিলামে বিক্রির সিদ্ধান্ত নেন টাইগার অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। মঙ্গলবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে লাইভে এসে সাকিব তার ব্যাটটি নিলামে তোলার কথা তুলে ধরেন।

করোনায় মোকাবেলার জন্য সাকিব আল হাসান একটি ফাউন্ডেশন চালু করেছেন। তার নাম সাকিব আল হাসান ফাউন্ডেশন। এই ফাউন্ডেশনের মাধ্যমেই সাকিব অর্থ সংগ্রহ করছেন। তিনি সকলকে ফাউন্ডেশনে অর্থ দেয়ার জন্য অনুরোধ করেছেন। ফাউন্ডেশনের তহবিলে যত টাকা জমা হবে তার সবই মানুষের কল্যাণের জন্য ব্যয় করা হবে।


Top