আজ || শনিবার, ১৫ Jun ২০২৪
শিরোনাম :
  খুলনা সার্কিট হাউজ মাঠে ইদজামাত আয়োজনের প্রস্তুতি পরিদর্শনে সিটি মেয়র       খুলনায় ঈদের প্রধান জামাত সার্কিট হাউজ মাঠে সকাল ৮টায়       পুত্রবধূর সঙ্গে ঝগড়া করে পুকুরে পড়ে শাশুড়ির মৃত্যু       নিউজিল্যান্ডকে বিপদে ফেলে সুপার এইটে ওয়েস্ট ইন্ডিজ       নগরীতে ইজিবাইক চালক রায়হান হত্যাকান্ডের মূল রহস্য উন্মোচন : দুই ঘাতক গ্রেফতার       নাড়ির টানে ঘরে ফিরছে মানুষ       যশোরে আইনজীবীর বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগ নেত্রীর শ্লীলতাহানির মামলা       স্বাভাবিক জীবনে আসা বনদস্যুদের মাঝে র‌্যাবের ঈদ সামগ্রী বিতরণ       ঘুমন্ত মায়ের কোল থেকে শিশু চুরির অভিযোগ       এই সংগ্রাম দেশের স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র রক্ষার : মির্জা ফখরুল    
 


রিমালে ক্ষতিগ্রস্থ প্রত্যেককে ঘর দেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী

: ঘূর্ণিঝড় রিমালে যাদের ঘর বিধ্বস্ত বা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে; তাদের প্রত্যেককে ঘর তৈরি করে দেবে সরকার। এমন আশ্বাস দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার (১১ জুন) দুপুরে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে আশ্রয়ণ প্রকল্পের জমি ও ঘর হস্তান্তর করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এ প্রকল্পের আওতায় নতুনভাবে আরও ১৮ হাজার ৫৬৬ গৃহহীন পরিবার ঘর পাচ্ছে। এর মাধ্যমে, আজ নতুন করে সম্পূর্ণ গৃহহীন মুক্ত হবে আরো ৭০টি উপজেলা।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, এরইমধ্যে ঘূর্ণিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা করা হয়েছে। যাদের ঘর সম্পূর্ণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তাদের জন্য ঘর তৈরি করে দেয়া হবে। আর যারা আংশিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তাদের ঘর তৈরীর নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে সহায়তা করা হবে।

এসময় তিনি বলেন, ঘরগুলো আমরা করে দিয়েছি সেটা আপনার সম্পত্তি। যে নিচ্ছেন বা পাচ্ছেন সেটা আপনার সম্পত্তি। এটাকে রক্ষণাবেক্ষণ, এটাকে সুন্দরভাবে রাখা, এটার যত্ন নেওয়া আপনার দায়িত্ব। বিদ্যুৎ ব্যবহার অবশ্যই সাশ্রয়ী হতে হবে। প্রতিটি গ্রামের মানুষও নাগরিক সুবিধা পাবে। সে লক্ষ্যেই কাজ করে যাচ্ছে সরকার। তারই সুফল পাচ্ছে দেশবাসী। বাংলাদেশের জনগণ কোনো অংশেই পিছিয়ে থাকবে না। কারো কাছে হাত পেতে নয়, নিজেদের সম্পদের যথাযথ ব্যবহারের মাধ্যমেই মাথা উঁচু করে চলবে বাংলাদেশ।

এ সময় ভূমি মালিকদের উদ্দেশ্যে শেখ হাসিনা বলেন, কোথাও যেন এক ইঞ্চি জমি অনাবাদি না থাকে। অনাবাদি জমিগুলো চাষের আওতায় নোট হবে। উৎপাদন বাড়াতে হবে তাগিদ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জলাশয় থাকলে সেখানে মাছের চাষ, জমি থাকলে ফসলের চাষ বা খালি জায়গায় গাছ লাগাতে হবে। জাতির পিতা বলেছিলেন ভিক্ষুক জাতির ইজ্জত থাকে না, আমরা কারোর কাছে ভিক্ষা করতে চাই না। হাত পেতে চলতে চাই না। যতটুকু আমাদের সম্পদ সেটা কাজে লাগিয়ে মাথা উঁচু করে চলব। সম্মানের সঙ্গে চলব। সেভাবেই বাংলাদেশ গড়ে তুলব। এসময় সবার সহযোগীতাও কামনা করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী আরও জানান, আজকের দিনটি তার জন্য আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ। ২০০৭ সালের ১৬ জুলাই তাকে মিথ্যা মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছিল। খালেদা জিয়া ক্ষমতায় থাকতেও মিথ্যা মামলা দেয়া হয়েছিল। আবার সেই সময় তত্ত্বাবধায়ক সরকারও মিথ্যা মামলা দেয়। আজকের দিন অর্থাৎ ১১ জুন সেই বন্দিখানা থেকে মুক্তি পেয়েছিলেন বলেও জানান তিনি।


Top