আজ || শনিবার, ১৫ Jun ২০২৪
শিরোনাম :
  খুলনা সার্কিট হাউজ মাঠে ইদজামাত আয়োজনের প্রস্তুতি পরিদর্শনে সিটি মেয়র       খুলনায় ঈদের প্রধান জামাত সার্কিট হাউজ মাঠে সকাল ৮টায়       পুত্রবধূর সঙ্গে ঝগড়া করে পুকুরে পড়ে শাশুড়ির মৃত্যু       নিউজিল্যান্ডকে বিপদে ফেলে সুপার এইটে ওয়েস্ট ইন্ডিজ       নগরীতে ইজিবাইক চালক রায়হান হত্যাকান্ডের মূল রহস্য উন্মোচন : দুই ঘাতক গ্রেফতার       নাড়ির টানে ঘরে ফিরছে মানুষ       যশোরে আইনজীবীর বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগ নেত্রীর শ্লীলতাহানির মামলা       স্বাভাবিক জীবনে আসা বনদস্যুদের মাঝে র‌্যাবের ঈদ সামগ্রী বিতরণ       ঘুমন্ত মায়ের কোল থেকে শিশু চুরির অভিযোগ       এই সংগ্রাম দেশের স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র রক্ষার : মির্জা ফখরুল    
 


মনিরামপুরে কলেজ ছাত্রকে শ্বাসরোধে হত্যা

মনিরামপুর পলাশী স্কুল এন্ড কলেজের মসজিদের পাশ থেকে ইকলাস হাসান নয়ন (১৭) নামে এক কলেজ ছাত্রের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১৭ মার্চ) সকালে এলাকাবাসীর খবরের ভিত্তিতে থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে।
এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানাযায়, কলেজ ছাত্র ইকলাস হাসান নয়ন বাঘারপাড়া উপজেলার জাদবপুর গ্রামের আবু হানিফের ছেলে। সদর উপজেলার রুদ্রপুর গ্রামের নানা আইয়ার আলীর বাড়িতে থেকে সে রুদ্রপুর কলেজে পড়ালেখা করতো। স্থানীয় লোকজন ও তার নানার পরিবারের সদস্যরা জানায়, নয়ন ছোটবেলা থেকে আমার বাড়িতে থেকে পড়ালেখা করে আসছে। এবার সে রুদ্রপুর কলেজের বাণিজ্য বিভাগ থেকে এইচএসসি পরীক্ষার্থী ছিলো। মনিরামপুর উপজেলার বাসুদেবপুর গ্রামে ইব্রাহিম হোসেন নামের এক শিক্ষকের কাছে সকালে প্রাইভেট পড়তো সে। মঙ্গলবার সকালে ফজর নামাজবাদ নানার বাড়ি থেকে প্রাইভেট পড়তে পায়ে হেঁটে বের হয়। এর কিছু সময় পর এলাকার লোকজন পলাশী স্কুল এন্ড কলেজের মসজিদের পাশে তার লাশটি পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রোহিতা ইউপি চেয়ারম্যান আনছার আলী সরদার।
মনিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রফিকুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। থানার ওসি (তদন্ত) শিকদার মতিয়ার রহমান বলেন, কোন প্রেম ঘটিত কারনে কলেজ ছাত্র ইকলাস হাসান নয়নকে হত্যা করা হতে পারে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে। তবে তার গলায় এবং কপালে আঘাতের চি‎হ্ণ রয়েছে। ধারনা করা হচ্ছে দূর্বৃত্তরা তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে। পুলিশ কলেজ ছাত্রের লাশটি উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে। রিপোর্ট লেখার আগ পর্যন্ত থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছিলো এবং এ ঘটনায় কেউ আটক হয়নি।


Top