আজ || শনিবার, ১৫ Jun ২০২৪
শিরোনাম :
  খুলনা সার্কিট হাউজ মাঠে ইদজামাত আয়োজনের প্রস্তুতি পরিদর্শনে সিটি মেয়র       খুলনায় ঈদের প্রধান জামাত সার্কিট হাউজ মাঠে সকাল ৮টায়       পুত্রবধূর সঙ্গে ঝগড়া করে পুকুরে পড়ে শাশুড়ির মৃত্যু       নিউজিল্যান্ডকে বিপদে ফেলে সুপার এইটে ওয়েস্ট ইন্ডিজ       নগরীতে ইজিবাইক চালক রায়হান হত্যাকান্ডের মূল রহস্য উন্মোচন : দুই ঘাতক গ্রেফতার       নাড়ির টানে ঘরে ফিরছে মানুষ       যশোরে আইনজীবীর বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগ নেত্রীর শ্লীলতাহানির মামলা       স্বাভাবিক জীবনে আসা বনদস্যুদের মাঝে র‌্যাবের ঈদ সামগ্রী বিতরণ       ঘুমন্ত মায়ের কোল থেকে শিশু চুরির অভিযোগ       এই সংগ্রাম দেশের স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র রক্ষার : মির্জা ফখরুল    
 


পশ্চিম বাংলায় আবারও অপরাজেয় মমতা

: ভারতের পশ্চিমবঙ্গে লোকসভা নির্বাচনের ফলাফলে ধস হয়েছে বিজেপির, বড় জয় পেয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। রাজ্যটির ৪২টি লোকসভা আসনের ২৯টিতে জয় পেয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল। এতে পশ্চিমবঙ্গে প্রধান দল হিসেবেই থাকছে তারা। বিজেপি জিতেছে ১২টি আসনে। একটি আসনে জয় পেয়েছে কংগ্রেস।

এর আগের নির্বাচনে ২০১৯ সালে এই রাজ্যে ভারত কেন্দ্রের শাসক দল বিজেপি পেয়েছিল ১৮ আসন। এবার তা নেমে এসেছে ১২টিতে।

তবে ভোট শেষে বিভিন্ন বুথফেরত জরিপে এগিয়ে রাখা হয়েছিল বিজেপিকে। বলা হয়েছিল, তৃণমূল ২০টির কম আসন পাবে। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এ জরিপকে ‘ভুয়া’ বলে প্রত্যাখ্যান করেন এবং অধিক সংখ্যক আসন পাবেন বলে জানান।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল তৃণমূল কংগ্রেস শুধু বেশি আসনই পায়নি, তারা ভোটও বাড়িয়েছে। নির্বাচন কমিশনের হিসাব অনুযায়ী, গতবারের তুলনায় সাড়ে ৩ শতাংশ ভোট বেশি পেয়েছে তৃণমূল। ২০১৯ সালের নির্বাচনে তৃণমূল পেয়েছিল ৪৩ দশমিক ৩ শতাংশ ভোট। এবার পেয়েছে ৪৬ দশমিক ৯ শতাংশ। অপরদিকে বিজেপির ভোট কমেছে ২ শতাংশের সামান্য বেশি।

উল্লেখ্য, পশ্চিমবঙ্গের ৪২ আসনে ভোট হয়েছে সাত দফায়। প্রত্যেক দফায় বিজেপি নেতা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ রাজ্যে এসে প্রচারণা চালিয়েছেন। তারা তৃণমূলের বিরুদ্ধে নানা বক্তব্যও দিয়েছেন। কিন্তু এসবের পরও শেষ রক্ষা হলো না বিজেপির।


Top