পরকীয়ার জেরে স্বামীকে হত্যা : স্ত্রী-প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড বহাল

খুলনার চিত্র ডেস্কঃ
  • প্রকাশিত : বুধবার, ১৮ আগস্ট, ২০২১

যশোরের চৌগাছায় পরকীয়ার জেরে স্বামী আব্দুর রাজ্জাক হত্যার দায়ে স্ত্রী শাবানা খাতুন ও প্রেমিক আব্দুল আলিমকে বিচারিক (নিম্ন) আদালতের দেয়া মৃত্যুদণ্ড বহাল রেখেছেন উচ্চ আদালত। রায়ের বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বশির আহমেদ।

ডেথ রেফারেন্স ও আসামিদের আপিলের ওপর শুনানি শেষে বুধবার (১৮ আগস্ট) হাইকোর্টের বিচারপতি সহিদুল করিম ও বিচারপতি মো. আক্তারুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল বেঞ্চ এই রায় দেন।

আদালতে আজ রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বশির আহমেদ। আসামিদের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট আইনুন্নাহার সিদ্দিকা ও অ্যাডভোকেট জাহেদ ইকবাল।

এর আগে ২০১৬ সালের ১৪ মার্চ যশোরের চৌগাছায় স্বামী আব্দুর রাজ্জাক হত্যার দায়ে স্ত্রী শাবানা খাতুন ও প্রেমিক আব্দুল আলিমকে মৃত্যুদণ্ড দিয়ে রায় ঘোষণা করেন যশোরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ চতুর্থ আদালতের বিচারক মো. শরীফ হোসেন হায়দার।

পরে তাদের মৃত্যুদণ্ড অনুমোদনের জন্য ডেথ রেফারেন্স হাইকোর্টে আসে। এছাড়া দণ্ড থেকে খালাস চেয়ে আপিল আবেদন করেন আসামিরা। ওই আপিল শুনানি নিয়ে আজ এ রায় দেন হাইকোর্ট।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৪ সালের ৯ মার্চ রাতে চৌগাছা উপজেলার আজমতপুর গ্রামের আব্দুর রাজ্জাককে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যা করেন তার স্ত্রী শাবানা খাতুন ও স্ত্রীর প্রেমিক আব্দুল আলিম। এই ঘটনায় নিহতের ভাই মিন্টু বাদী হয়ে ১১ মার্চ চৌগাছা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় নিহতের স্ত্রী শাবানা খাতুন ও আব্দুল আলিমকে আসামি করা হয়। আব্দুল আলিমের সঙ্গে শাবানা খাতুনের পরকীয়া সম্পর্ক ছিল। হত্যাকাণ্ডে নিজের জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিও দেন শাবানা খাতুন।

সংশ্লিষ্ঠ আরও খবর