নেইমার-এমবাপ্পেদের ফেরার ম্যাচে হারল পিএসজি

স্পোর্টস ডেস্ক
  • প্রকাশিত : শনিবার, ২১ নভেম্বর, ২০২০

চোট কাটিয়ে মাঠে ফিরলেন পিএসজির দুই প্রাণভোমরা নেইমার জুনিয়র ও কিলিয়ান এমবাপ্পে। কিন্তু তাতেও কাজ হলো না।

বরং শুরুতে দুই গোলে পিছিয়ে পড়েও শেষ পর্যন্ত ফরাসি চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে দিল মোনাকো।

শুক্রবার রাতে ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানে দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তনের গল্প লিখে পিএসজিকে ৩-২ গোলে হারিয়েছে মোনাকো।

লিগ ওয়ানের এবারের মৌসুমে প্রথম দুই ম্যাচে হার দিয়ে শুরু করা পিএসজি টানা ৮ ম্যাচ জিতেছিল। তাদের সেই জয়যাত্রা থামিয়ে দিল মোনাকো। তবে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে এখনও পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষেই আছে পিএসজি। ২০ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে মোনাকো।

ইনজুরি কাটিয়ে ফেরা কিলিয়ান এমবাপ্পে প্রথমার্ধেই জোড়া গোল করে পিএসজিকে আধিপত্য বিস্তারে সহায়তা করেন। ফরাসি ফরোয়ার্ডের প্রথম গোলে আবার আনহেল দি মারিয়ারও অবদান আছে। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে মাত্র ১৩ মিনিটের ব্যবধানে খেলার গতিপথ বদলে দেন মোনাকোর কেভিন ভোল্যান্ড। এরপর প্রত্যাবর্তনের ম্যাচে পেনাল্টি থেকে গোল করে মোনাকোর জয় নিশ্চিত করেন সেস ফ্যাব্রেগাস।

প্রথমার্ধে এমবাপ্পের দুই গোলের পর ব্যবধান আরও বাড়াতে পারতো পিএসজি। কিন্তু ইনজুরি কাটিয়ে ফেরা তরুণ ফরোয়ার্ড ময়সে কিন ও এমবাপ্পের শট লক্ষ্যভেদ করলেও অফসাইডের ফাঁদে পড়ায় বাতিল হয়ে যায়। কিন্তু বিরতির পর ফ্যাব্রেগাস নামতেই মোনাকোর খেলায় যেন প্রাণ ফিরে আসে। স্প্যানিশ মিডফিল্ডারের দুর্দান্ত পাসিং ফুটবলের সঙ্গে পাল্লা দিতে ব্যর্থ হন পিএসজির খেলোয়াড়রা।

নিজে এক গোল করার পাশাপাশি ভোল্যান্ডের দ্বিতীয় গোলেও অবদান রাখেন ফ্যাব্রেগাস। এরপর ৮৩তম মিনিটে গোলমুখে ছুটতে থাকা ভোল্যান্ডকে তেনে ফেলে দেন পিএসজি ডিফেন্ডার দানিলো। শুরুতে রেফারি হলুদ কার্ড দেখালেও ভিএআর ব্যবহার করে লাল কার্ড দেখানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। আর পেনাল্টিকে গোলে পরিণত করে প্রত্যাবর্তনকে স্মরণীয় করে রাখেন ফ্যাব্রেগাস।

সংশ্লিষ্ঠ আরও খবর