‘টাকার জন্য আরিয়ানকে অপহরণ করতে চেয়েছিলেন সমীর’

খুলনার চিত্র ডেস্কঃ
  • প্রকাশিত : রবিবার, ৭ নভেম্বর, ২০২১

বলিউড বাদশা শাহরুখ খানের বড় ছেলে আরিয়ান খানকে আটক-গ্রেফতারের পর থেকে আলোচনায় ভারতের কেন্দ্রীয় মাদক নিয়ন্ত্রণ সংস্থার (এনসিবি) কর্মকর্তা সমীর ওয়াংখেড়ে। সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে একের পর এক প্রশ্নে বিদ্ধ হচ্ছেন তিনি। তার বিরুদ্ধে করা হচ্ছে চাঞ্চল্যকর সব অভিযোগ।

মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী নবাব মালিক এনসিবির মুম্বাই জোনাল ডিরেক্টরের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেই যাচ্ছেন। এবার এই অফিসারের বিরুদ্ধে ‘অপহরণের চেষ্টা’র অভিযোগ আনলেন তিনি।

শুরু থেকেই নবাব মালিকের দাবি, ক্রুজে এনসিবির অভিযান পুরোটাই ছিল সমীরের ‘সাজানো নাটক’। মূলত আরিয়ানকে অপহরণ করে শাহরুখ খানের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা আদায় করতে চেয়েছিলেন সমীর।

হিন্দুস্তান টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মালিক জানান, আরিয়ানকে কিডন্যাপ করে মাদক মামলায় তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করেছেন সমীর, কিন্তু তার সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হয়নি।

মালিকের অভিযোগ, ড্রাগ মামলার নামে মূলত আরিয়ানকে কিডন্যাপ করতে চেয়েছিল সমীর ওয়াংখেড়ে, যাতে শাহরুখ খানের কাছ থেকে মোটা টাকা আদায় করা যায়। এই এনসিপি নেতা তথা মন্ত্রীর হুমকি, শিগগিরই সমীরের আলমালিতে রাখা কঙ্কাল বেরিয়ে পড়বে।

এদিকে, চাঁদাবাজির অভিযোগ নিয়ে সমীরের বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্ত শুরু করে দিয়েছে এনসিবি। একই সঙ্গে আরিয়ান খানের মাদক মামলা তদন্ত থেকেও সরিয়ে দেওয়া হয়েছে তাকে।

উল্লেখ্য, গত ২ অক্টোবর রাতে মুম্বাই উপকূলের একটি প্রমোদতরী থেকে সমীরের টিম আটক করে আরিয়ান খানকে। এ সময় আরিয়ানের সঙ্গে থাকা তার দুই বন্ধু আরবাজ মার্চেন্ট ও মুনমুন ধামেচাকেও আটক করা হয়। এরপর জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ৩ অক্টোবর তাদের মাদক মামলায় গ্রেফতার করা হয়। অবশেষে ২৮ অক্টোবর জামিন পান আরিয়ান। এরপর কারামুক্ত হয়ে ঘরে ফেরেন শাহরুখ পুত্র।

সংশ্লিষ্ঠ আরও খবর