শিরোনাম
অগ্রাধিকার সুবিধাগুলো অব্যাহত রাখতে জাপান ও ওইসিডি’র দেশগুলোর সহযোগিতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ১০ উইকেটের বড় হারে সিরিজও খোয়ালো বাংলাদেশ বিএনপি নেতা তুহিনসহ ৩৭ জন আটক, ৮ শতাধিক নেতাকর্মীর নামে মামলা নেদারল্যান্ডসে প্রশিক্ষণে গিয়ে দুই কনস্টেবল লাপাত্তা ছাত্রলীগ-যুবলীগ পুলিশের সহায়তায় বিএনপির সমাবেশে আক্রমণ চালায় : মনা ক্যাম্পাসে লাশ ফেলার ষড়যন্ত্রে বিএনপি : ওবায়দুল কাদের টুকুকে রেখেই যুবদলের নতুন কমিটি ঘোষণা খাদ্য সংকট দূর করতে পুতিনের প্রস্তাব মরণোত্তর ‘দ্যাগ হ্যামারশোল্ড মেডেল’ পেলেন দুই বাংলাদেশি শান্তিরক্ষী ছাত্রীর পর এবার এমসি কলেজের ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার

খুলনা বিভাগে করোনা শনাক্তের হার ২৬.৩২

খুলনার চিত্র ডেস্কঃ
  • প্রকাশিত : বুধবার, ১৯ জানুয়ারী, ২০২২

খুলনা বিভাগে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। গত ২৪ ঘন্টায় বিভাগের ১০ জেলায় ১ হাজার ৮৩টি নমুনা পরীক্ষায় ২৮৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় করোনা শনাক্তের হার ২৬ দশমিক ৩২ শতাংশ।

তবে গত ২৪ ঘন্টায় বিভাগে করোনায় মারা যায়নি কেউ। এরআগে, মঙ্গলবার বিভাগে করোনায় দুই জনের মৃত্যু হয়েছিল। একইসময়ে করোনা শনাক্ত হয়েছিল ১৫৮ জনের।

বুধবার (১৯ জানুয়ারি) দুপুরে খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. মো. মনজুরুল মুরশিদ স্বাক্ষরিত এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, গত ২৪ ঘন্টায় খুলনা বিভাগে করোনা শনাক্তের সংখ্যা ২৮৫ জন। এর মধ্যে খুলনা জেলায় সর্বোচ্চ ৯৪ জনের শনাক্ত হয়েছে। আর যশোরে ৭৫ জন, কুষ্টিয়ায় ৪৪ জন, ঝিনাইদহে ৩১ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এছাড়া চুয়াডাঙ্গায় ১৫ জন, মাগুরা ও সাতক্ষীরায় ১১ জন করে এবং বাগেরহাটে ৪ জনের। নড়াইল ও মেহেরপুরে কারও করোনা শনাক্ত হয়নি।

স্বাস্থ্য বিভাগের ওই প্রতিবেদনে আরও জানা যায়, খুলনা বিভাগে করোনা সংক্রমণের শুরু থেকে আজ সকাল পর্যন্ত বিভাগের ১০ জেলায় মোট ১ লাখ ১৪ হাজার ৭০৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এখন পর্যন্ত করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৯ হাজার ৩৭২ জন। আর মোট মারা গেছেন ৩ হাজার ১৯৭ জন।

শনাক্ত সংখ্যা বিবেচনায় জেলাগুলোর মধ্যে শীর্ষে আছে খুলনা। এখানে ২৮ হাজার ৩২২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের সংখ্যায় সবচেয়ে কম মাগুরায় ৪ হাজার ১৭৬ জন।

এছাড়া করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছে খুলনায়। এই জেলায় মারা গেছে ৮০৯ জন। আর মৃতের সংখ্যায় সবচেয়ে কম সাতক্ষীরায় ৮৮ জন।

খুলনা ২০০ শয্যা ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালের ফোকাল পারসন ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার জানান, বুধবার সকাল পর্যন্ত হাসপাতালের ২০ জন রোগী ভর্তি রয়েছে। এরমধ্যে আইসিইউতে একজন, রেডজোনে তিনজন এবং ইয়েলো জোনে ১৬ জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

সংশ্লিষ্ঠ আরও খবর