আজ || শনিবার, ১৫ Jun ২০২৪
শিরোনাম :
  খুলনা সার্কিট হাউজ মাঠে ইদজামাত আয়োজনের প্রস্তুতি পরিদর্শনে সিটি মেয়র       খুলনায় ঈদের প্রধান জামাত সার্কিট হাউজ মাঠে সকাল ৮টায়       পুত্রবধূর সঙ্গে ঝগড়া করে পুকুরে পড়ে শাশুড়ির মৃত্যু       নিউজিল্যান্ডকে বিপদে ফেলে সুপার এইটে ওয়েস্ট ইন্ডিজ       নগরীতে ইজিবাইক চালক রায়হান হত্যাকান্ডের মূল রহস্য উন্মোচন : দুই ঘাতক গ্রেফতার       নাড়ির টানে ঘরে ফিরছে মানুষ       যশোরে আইনজীবীর বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগ নেত্রীর শ্লীলতাহানির মামলা       স্বাভাবিক জীবনে আসা বনদস্যুদের মাঝে র‌্যাবের ঈদ সামগ্রী বিতরণ       ঘুমন্ত মায়ের কোল থেকে শিশু চুরির অভিযোগ       এই সংগ্রাম দেশের স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র রক্ষার : মির্জা ফখরুল    
 


কলারোয়ায় কলেজ শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে হত্যা, তিনজন আটক

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি.
সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার যুগিখালী ইউনিয়নের পাইকপাড়া গ্রামে এক কলেজ ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে কলারোয়া থানা পুলিশ। নিহত শিক্ষার্থী পাইকপাড়া গ্রামের বজলুর রহমানের ছেলে তুষার জনি (২০)।
কলারোয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মুনীর উল গিয়াস বলেন, বৃহস্পতিবার (বিকাল ৫টা) তিনি বর্তমানে ঘটনাস্থলেই অবস্থান করছেন। ঘটনাস্থলে উপস্থিত থেকে প্রাথমিকভাবে সবার সাথে কথা বলে প্রাথমিকভাবে যা জেনেছেন তা হলো ঢাকা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের ২য় বর্ষের ছাত্র পাইকপাড়া গ্রামের বজলুর রহমানের ছেলে তুষার জনি (২০)’র সাথে স্থানীয় কামরুজ্জামানের স্কুল পড়–য়া মেয়ের সখ্যতা গড়ে ওঠে। এ ঘটনায় বুধবার রাতে কামরুজ্জামান ও তার ভাই ওয়াহিদুজ্জামান কৌশলে মেয়েকে দিয়ে জনিকে ফোন দিয়ে বাড়িতে ডেকে এনে বেদম পেটায়। পিটুনিতে জনি জ্ঞান হারালে মৃত ভেবে বাইরে ফেলে রেখে দেয়। এরপর স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে সাথে সাথেই সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে অবস্থা সংকটাপন্ন হলে বৃহস্পতিবার দুপুরে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে মৃত্যুবরণ করে।
ওসি শেখ মুনীর উল গিয়াস বলেন, এঘটনায় কামরুজ্জামানের পিতা রিয়াজ উদ্দিন, স্ত্রী আসমা খাতুন, ৩নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আব্দুল জলিলকে আটক করেছে পুলিশ। জনির পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা প্রস্ততি চলছে।
স্থানীয় যুগিখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম বলেন, মেধাবী ছাত্র জনিকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে। যেকোন অপ্রীতিকর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য পুলিশ ঘটনাস্থলে অবস্থান করছে। #


Top